Avatar
amarMP News,

বাসায় বসেই পাবেন এমপিকে

খুব জরুরি প্রয়োজনে ফোন করা দরকার আপনার এলাকার এমপিকে। কিন্তু ফোনে পাচ্ছেন না তাকে। মেইল করা দরকার, মেইলেও পাচ্ছেন না। এই সমস্যার সহায় হয়ে আসছে এমপিদের নিযে এক ব্যতিক্রমী ওয়েবসাইট- ‘আমার এমপি ডটকম’। কোনো বিষয়ে জানতে বা জানাতে তা এই ওয়েবসাইটে পাঠিয়ে দিলেই পেয়ে যাবেন এমপি।

 

ওয়েবসাইটটি পরীক্ষামূলকভাবে চলছে এক বছর ধরে। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে চালু হবে আগামী ২৬ মার্চ বা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিনে।

এই ওয়েবসাইটে থাকবে দেশের সব এমপির তথ্য। যে কেউ ওয়েবসাইটে ঢুকে নিজের এলাকা ও এমপির নাম দিলেই তার সব তথ্য চলে আসবে। এমপিকে ই-মেইল, ফোন, টুইট ও প্রশ্ন করার ম্যানু থাকবে। দরকারি মেনুতে ক্লিক করে যোগাযোগ ও সব প্রশ্ন করা যাবে। এমপির বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানাও আছে ওই ওয়েবসাইটে। 

ওয়েবসাইটটির নির্মাতা লন্ডন প্রবাসী সিভিল ইঞ্জিনিয়ার সুশান্ত দাস গুপ্ত। ওয়েবসাইটটি নির্মিত হয়েছে তার আইটি ফার্ম টেকশেট লিমিটেডের মাধ্যমে। তিনি লন্ডন থাকায় তার সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

তবে ওয়েবসাইটটির প্রধান অফিস সিলেটের হবিগঞ্জ থেকে মুঠোফোনে কথা হয় ওয়েবসাইটটির প্রজেক্ট ইঞ্জিনিয়ার ইফতেখার মোহাম্মদের সঙ্গে। তিনি ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘আমরা জনগণ ও জনপ্রতিনিধিদের মধ্যে সেতুবন্ধ তৈরি করতেই এমন উদ্যোগ নিয়েছি। এর মধ্য দিয়ে একজন সাধারণ মানুষ খুব সহজেই তার জনপ্রতিনিধিকে খুঁজে পাবে। তার মনের কোণে জমে থাকা প্রশ্ন করতে পারবে যেকোনো সময়।’

এই উদ্যোগের পরিকল্পনা সম্পর্কে ইফতেখার বলেন, ‘২০১০ সালে এই ওয়েবসাইটটি বানানোর ভাবনা আসে আমাদের মাথায়। তখন থেকেই আমরা পরিকল্পনা করেছি এমন একটি ওয়েবসাইট তৈরি করার। এরপর ২০১৬ সালে এটি আমরা পরীক্ষামূলকভাবে চালু করেছি।’

এই সময়ে সব এমপির সব তথ্য সংগ্রহ ও অন্যান্য আনুষঙ্গিক কাজ সেরে নিচ্ছেন তারা। এ জন্যই আনুষ্ঠানিক যাত্রায় দেরি হয়েছে বলে জানান ইফতেখার। তিনি বলেন, ‘এটি সম্পূর্ণভাবে চালু করার জন্য ৩৫০ জন এমপির তথ্য লাগবে। তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে আমরা দেখি, তাদের সাত-আটজন ছাড়া কারোই কোনো ওয়েবসাইট নেই। তাই আমরা প্রত্যেকের সঙ্গে যোগাযোগ করছি। তাদের সম্মতি নেয়ার প্রয়োজন রয়েছে। এ ছাড়া আইসিটি মন্ত্রণালয়ের অনুমতির দরকার আছে। সবকিছু ঠিক করতে সময় লেগেছ।’

ইতোমধ্যে সবকিছু গুছিয়ে ফেলেছেন জানিয়ে ইফতেখার বলেন, ‘এই মাসেও আমরা তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রীর সঙ্গে বসেছি। আশা করছি, মার্চের মধ্যেই আমরা এই ব্যতিক্রমী ওয়েসাইটটি উদ্বোধন করতে পারব।’

Dr. Shirin Sharmin Chaudhury