amarMP News,

হাতের মুঠোয় এমপি, করা যাবে প্রশ্ন!

এমপিরা এখন সাধারণ মানুষের হাতের মুঠোয়। খুব সহজেই যোগাযোগ করা যাবে তাদের সঙ্গে। মোবাইল বা মেইল করে জানা যাবে এলাকার উন্নয়ন কর্মকান্ড। এমনকি থমকে থাকা প্রকল্পের অগ্রগতি সম্পর্কেও করা যাবে প্রশ্ন। এমন ভাবনা নিয়েই যাত্রা শুরু করেছে আমার এমপি ডট কম। পরীক্ষামূলকভাবে ওয়েবসাইটটি এক বছর ধরে কার্যক্রম চালালেও অনুষ্ঠানিকভাবে পূর্ণাঙ্গ যাত্রা শুরু করছে ২৬ শে মার্চ অথবা বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে।

জানা গেছে, সাইটিটি ব্যবহার করে ঘরেই কোন একটি প্রশ্নের উদয় হলে- সে প্রশ্ন করা যাবে নিজ এলাকার সংসদ সদস্যকে। মন্ত্রী বা এমপিরা সেই প্রশ্নের দিবেন। ইতিমধ্যে কোন কোন এমপি প্রশ্নের উত্তর দিতে শুরু করেছেন। আমার এমপি ডট কম সাইট ব্যবহার করে সাধারণ মানুষের প্রথম উত্তর দিয়েছেন সিলেটের হবিগঞ্জ-৩ আসনের এমপি আবু জহির চৌধুরি। যিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারে সিলেট বিভাগে সবচেয়ে এগিয়ে। দ্বিতীয় উত্তরটি দিয়েছেন কক্সবাজার-৪ আসনের এমপি আবদুর রহমান বদি, যার বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসার জোর অভিযোগ রয়েছে। প্রশ্নও করা হয়েছিল, মাদক ব্যবসা সম্পর্কেই। ওই প্রশ্নের উত্তরে তিনি, মাদক ব্যবসা নিরসনে নানা পদক্ষেপের কথা জানান।


ওয়েবসাইটির নির্মাত লন্ডন প্রবাসী সিভিল ইঞ্জিনিয়ার সুশান্ত দাস গুপ্ত। তার নিজস্ব আইটি ফার্ম টেকশেটের লিমিটেডের মাধ্যমে তিনি এটি নির্মাণ করেছেন। সাইট নির্মাণ করতে গিয়ে সংগ্রহ করেছেন ৩৫০ এমপির ব্যক্তিগত ও সামাজিক তথ্য। দীর্ঘদিন নিরলস পরিশ্রম করে গত বছরের শেষ দিকে এসে সাইটিকে পূর্ণাঙ্গ রুপ দিতে পারেন। একইসঙ্গে অল্প সময়ে সাইটি নজর কেড়েছে সবার।


এর আগে সাইটির পক্ষ থেকে '১০ম জাতীয় সংসদ: এমপিদের ওপর সামাজিক গবেষণা’ শীর্ষক একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। এতে দেখা গেছে, খোদ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারে দেশের ডিজিটাল এমপিরা তেমন সক্রিয় নন। ৩৫০ এমপির মধ্যে ২৯৫ এমপির ফেসবুক আইপি বা পেজ থাকলেও সেগুলো ভেরিফাইড নয়। ভেরিফাইড ফেসবুক আইডি আছে এম এমপির সংখ্যা মাত্র ৭। আর ভেরিফাইড টুইটার একান্ডট আছে মাত্র ২ জনের। ওয়েবসাইট আছে মাত্র ১৫ এমপির। এমপিদের ১৬৩ জনই ব্যবসায়ী। ফলে তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একেবারেই সক্রিয় নন।


‘আমার এমপি’ টিম কর্তৃক পরিচালিত এই গবেষণায় দেখা গেছে, যে ৭ এমপির ভেরিফাইড ফেসবুক আইডি বা পেজ আছে তারা হলেনÑ জুনাইদ আহমেদ পলক, শাহরিয়ার আলম, ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল, শিরিন শারমিন চৌধুরী, তারানা হালিম, ওবায়দুল কাদের (আইডি) ও দিপু মনি (আইডি)। জরিপ পরিচালনায় দেখা গেছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উপস্থিতি নেই খোদ তথ্যমন্ত্রীর। ফেসবুকে একটি আইডি থাকলেও তার কার্যক্রম নিষ্ক্রিয়। তার নেই নিজস্ব কোন ওয়েবসাইট। একই অবস্থা অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত ও শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদেরও। দেশের প্রথম সাড়ির গণমাধ্যমে এমন তথ্য প্রকাশিত হওয়ার পর নড়েচড়ে বসে সরকারের মন্ত্রী এমপিরা। তারা সক্রিয় হতে থাকে সামজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও আমার এমপি ডট কম সাইটে। দিতে থাকেন প্রশ্নের উত্তর।


জরিপ পরিচালনা করতে গিয়ে বিভাগ ভিক্তিত তথ্যে দেখা গেছে, ভার্চুয়াল জগতে সবচেয়ে কম উপস্থিতি রয়েছে সিলেট বিভাগের এমপিদের। এ বিভাগের ১৯ এমপির কারো নিজস্ব ওয়েবসাইট নেই। নেই ভেরিফাইড ফেসবুক পেজ বা প্রোফাইল। টুইটারেও তাদের কোন উপস্থিতি নেই। সিলেট বিভাগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সবচেয়ে বেশি সরব উপস্থিতি রয়েছে হবিগঞ্জের সংসদ সদস্য মোঃ আবু জহিরের, তবে তার ফেসবুক আইডিও ভেরিফাইড নয়।


ময়মনসিংহ বিভাগের এমপির মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সবচেয়ে বেশি সক্রিয় গফরগাঁওয়ের সংসদ সদস্য ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল। তার ফেসবুক পেজ ভেরিফাইড হলেও টুইটার এ্যাকাউন্ট ভেরিফাইড নয়। নিজস্ব ওয়েবসাইটের উন্নয়নেও এই এমপির নজর নেই তেমন। তবে একই জেলার অন্য এমপিরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেই তেমন সক্রিয় নন। তুলনামূলক ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল এগিয়ে আছেন এ বিভাগে। বর্তমানে তিনি সক্রিয় হচ্ছেন টুইটারেও।


সরকারের মন্ত্রী-এমপিদের এমন অবস্থা প্রসঙ্গে আইটি বিশেষজ্ঞাদের পরামর্শ, তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আরও বেশি সক্রিয় হোক। বিশিষ্ট প্রযুক্তিবিদ মোস্তফা জব্বার মনে করেন, সমানের নির্বাচনে ২ কোটি নতুন ভোটার হবে। তাদের আকৃষ্ট করতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারের বিকল্প নেই।


সামগ্রিক প্রসঙ্গে আমার এমপি প্রজেক্টের সোস্যাল মিডিয়া কনসালট্যান্ট সুশান্ত দাস গুপ্ত বাংলাদেশ প্রেসকে বলেন, ‘আগামী সংসদ নির্বাচনে আমার এমপি ডট কম হবে একটি ইউনিক সাইট যেখান থেকে যেকোন এমপি পদপ্রার্থী সম্পর্কে ভোটাররা বিশদ জানতে পারবেন এবং তাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন। আমরা এই মিশন নিয়েই কাজ করছি। বাংলাদেশের সংসদ সদস্যদের দায়িত্ব, কাজের স্বচ্ছতা ও দায়বদ্ধতা নিরূপণের লক্ষ্যে একটি উন্মুক্ত প্লাটফর্ম / গেটওয়ে আমরা তৈরি করছি যা সংশ্লিষ্ট নির্বাচনী এলাকার ভোটারদের কাছ থেকে বার্তা এবং প্রতিক্রিয়া গ্রহনের মাধ্যমে সম্পন্ন হবে।'

Source: Bangladesh Press.


173 views