Avatar

১৯৯১-২০০৮ঃ চারটি জাতীয় নির্বাচনের কিছু উল্লেখযোগ্য পরিসংখ্যান

www.amarMP.com থেকে আমরা নিয়মিত জাতীয় সংসদের বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত নিয়ে পোস্ট দিচ্ছি। ইতোমধ্যে আমরা দেখিয়েছি কিভাবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সার্বিক ভোট প্রাপ্তির শতকরা হার ১৯৯১ থেকে ২০০৮ ক্রমশঃই বেড়েছে। আমরা এও দেখিয়েছি আওয়ামী লীগ, বিএনপি এবং জাতীয় পার্টির সেইফ সিট কোনগুলো আর কোনগুলো মার্জিনাল। আজকে আরো স্পেসিফিক কিছু তথ্য আপনাদের সামনে উপস্থাপন করতে চাই। 

১/১৯৯১ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারির নির্বাচন থেকে শুরু করে ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বরের নির্বাচন পর্যন্ত চারটি নির্বাচনের প্রতিবারই ২৭টি আসনে একটানা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ জয়ী হয়েছিল। এ আসনগুলোর এক-তৃতীয়াংশই বৃহত্তর ফরিদপুরে অবস্থিত। আর অর্ধেকের বেশি (১৫টি) ফরিদপুরসহ দক্ষিণবঙ্গে অবস্থিত।

২/ ১৯৯১ থেকে ২০০৮- এই চারটি নির্বাচনের প্রতিবারই বিএনপি একটানা জয়ী হয়েছিল ১৮টি আসনে। কাজেই এখন পর্যন্ত আওয়ামী লীগ থেকে ৯ টি কম আসনে একটানা জিতেছিল বিএনপি। আরও লক্ষণীয় যে বিএনপির এ জয়গুলো এসেছিল মূলত বৃহত্তর বগুড়া, বৃহত্তর কুমিল্লা ও বৃহত্তর নোয়াখালী থেকে।

৩/ ১৯৯১ থেকে ২০০৮- এই চারটি নির্বাচনে জাতীয় পার্টি ৭ টি আসনে একটানা জিতেছিল। লক্ষণীয় যে জাতীয় পার্টির একটানা জেতা আসনের সব কটিই বৃহত্তর রংপুরে অবস্থিত।

৪/ ১৯৯১ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত ২৭টি আসনে একটানা চারবার জেতার বাইরেও আওয়ামী লীগ ১৯৯১ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত একটানা তিনবার আরও তিনটি আসনে জয়ী হয়েছিল।

৫/ ১৯৯১ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত ১৮ টি আসনে একটানা চারবার জেতার বাইরেও বিএনপি একই সময়ে ১৯৯১ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত বিএনপি ৫৪টি আসনে একটানা তিনবার জয়ী হয়েছিল।

৬/ জাতীয় পার্টি ১৯৯১ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত ৭ টি আসনে একটানা চারবার জেতার বাইরে ১৯৯১ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত একটানা তিনবার ছয়টি আসনে জয়ী হয়েছিল।

৭/ ১৯৯১ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী একটি আসনে তিনবার একটানা জিতেছিল, আসনটি ছিল সাতক্ষীরা-২। জামায়াত ১৯৯১ সালে ১৮টিতে, ১৯৯৬ সালে ৩টিতে, ২০০১ সালে ১৭টিতে এবং ২০০৮ সালে মাত্র ২টি আসনে জয়ী হয়েছিল।

৮/ ঐতিহাসিক নির্বাচনী ফলাফল থেকে এটি সুস্পষ্ট যে আওয়ামী লীগ ৩০টি (২৭+৩) আসনে অপ্রতিদ্বন্দ্বী। পক্ষান্তরে বিএনপি প্রায় অপ্রতিদ্বন্দ্বী ৭২টি (১৮+৫৪) আসনে।

৯/ আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির সম্মিলিতভাবে টানা চারবার জেতা আসনের সংখ্যা হয় ৩৪টি (২৭+৭)। এ দুটি দল ১৯৯১ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত টানা তিনবার জিতেছে ৯টি (৩+৬) আসনে। অর্থাৎ আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টি আবারও জোটবদ্ধ হলে তারা মোট ৪৩টি (৩৪+৯) আসনে জনসমর্থনের দিক থেকে শক্তিশালী অবস্থানে থাকবে।

১০/ ১৯৯১ থেকে শুরু করে ২০০৮ সাল পর্যন্ত অনুষ্ঠিত নির্বাচনগুলোতে আওয়ামী লীগ একটানা চারবার বিএনপির তুলনায় বেশি আসনে জিতেছে। জাতীয় পার্টির আসন যোগ করলে আওয়ামী লীগ-জাতীয় পার্টির একটানা চারবার জেতা আসনের সংখ্যা দাঁড়ায় বিএনপির প্রায় দ্বিগুণ—৩৪ বনাম ১৮।

১২/ একটানা তিনবার জেতা আসনের সংখ্যা যোগ করলে বিএনপি ও তার মিত্রদের আওয়ামী লীগ ও তার মিত্রদের থেকে অনেক বেশি শক্তিশালী মনে হয়—তাদের তুলনামূলক আসনসংখ্যা দাঁড়ায় যথাক্রমে ৭৪ ও ৪৩।

উপরে উল্লেখিত পরিসংখ্যানগুলো খেয়াল রেখে রাজনৈতিক দলগুলো তাঁদের পরিকল্পনা প্রণয়ন করে এগিয়ে যাক এই শুভকামনা থাকলো। 

Alhaj Hussain Muhammad Ershad -আলহাজ হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ Sheikh Hasina -শেখ হাসিনা

532 views