View Question 1338 views

Subject : সাতক্ষীরার অবহেলিত নারী ও শিশুদের কল্যানার্থে করনীয় বিষয়।

Avatar

Written By : আল মামুন

তারিখ:২৩.০৩.২০১৭

বরাবর,

মাননীয় এমপি মহোদয়,

মিসেস রিফাত আমিন সংরক্ষিত সংসদীয় আসন-৩১২ মহান জাতীয় সংসদ, বাংলাদেশ।

মহোদয়, শুভেচ্ছা নিবেন; আমি আপনার নির্বাচনী এলাকা মহান জাতীয় সংসদ এর সংরক্ষিত আসন-১২ এর বাসিন্দা মোঃ আল মামুন, পিং-মোঃ রফিকুল ইসলাম হইতেছি। নারী ও শিশুদের কল্যানার্থে বিগত দিনে আপনার হাত দ্বারা সাতক্ষীরাতে অনেক কল্যান সাধিত হয়েছে, সেটা জেলাবাসী আমরা সকলেই অবগত। আমার প্রশ্নের মূল বিষয়বস্তু আগামীতে সাতক্ষীরার অবহেলিত নারী ও দুস্থ, সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে আপনার কোন চিন্তা-চেতনা বা পরিকল্পনা আছে কি? যদি থাকে তাহলে অবশ্যই একটু জানাবেন, কৃতার্থ হবো।

Best Regards

আল মামুন

Avatar

Written By : REFAT AMIN -রিফাত আমিন

Public

প্রথমে সাধুবাদ জানাই www.amarmp.com নামক উন্মুক্ত প্লাটফর্ম বা গেটওয়ে চালু করে সংশ্লিষ্ট জনপ্রতিনিধির সাথে জনগনের মাঝে সেতুবন্ধন তৈরির প্রধান উদ্যোক্তা সুশান্ত দাস গুপ্ত সহ কমিটির সকল সদস্যকে।ধন্যবাদ জানাই আল মামুন কে নারী ও শিশু নিয়ে জনগুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন করার জন্য।সর্বক্ষেত্রে নারীর অংশগ্রহনের সুযোগ সৃষ্টি এবং বৈষম্য দূর করার জন্য নারী ক্ষমতায়নের উদ্যোগ নিয়েছি, জাতীয় নারী উন্নয়ন নীতিমালা ২০১১।কৃষিকাজ থেকে শুরু করে মাউন্ট এভারেষ্ট পর্বতশৃঙ্গে আমরা নারীরা উড়িয়েছি বাংলাদেশের বিজয় নিশান।নারী জনশক্তি নির্ভর তৈরী পোষাক রপ্তানিতে আমরা এখন বিশ্বের ২য় বৃহত্তম দেশ।আমি যেহেতু একজন নারী, আমার ভাবনায় সর্বক্ষণ নারী ও শিশু। নারীদের সর্ব বিষয়ে উন্নয়নের সর্বাত্মক চেষ্টা করে যাচ্ছি। তাদের জন্য উপযুক্ত বয়স্ক শিক্ষা কেন্দ্র, হস্তশিল্প, বিভিন্ন আয়বর্ধক কর্মকান্ড, যেমন-দর্জি বিজ্ঞান, সুতা শিল্প, মৎস্য শিল্প, বেত-বাঁশের কাজে তাদেরকে পুনঃবাসনের চেষ্টা করে যাচ্ছি। সাথে সাথে শিশুদের শিক্ষিত করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে মায়েদের বিশেষ উপযোগী প্রশিক্ষনের ব্যবস্থা করে তা বাস্তবায়ন করেছি। অসহায়-দরিদ্র, দুস্থ বৃদ্ধা নারীদের বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, স্বামী পরিতক্ত্যা ভাতা পাইয়ে দেওয়ার জন্য কাজ করেছি।পক্ষান্তরে কম বয়সী শিশু ও গরীব মেয়েদের জাতীয় মহিলা সংস্থার মাধ্যমে সেলাই প্রশিক্ষন, হস্তশিল্প, খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ প্রশিক্ষনের মাধ্যমে তাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করাই আমার লক্ষ্য। পাশাপাশি ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানে বঙ্গবন্ধু তনয়া জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরও শক্তিশালী করার লক্ষ্যে ৬মাস ও ১বছর মেয়াদী কম্পিউটার এবং তথ্য-প্রযুক্তির যথোপযুক্ত প্রশিক্ষনের ব্যবস্থা করবো, যাতে তারা নিজেরা সাবলম্বী হয়ে সংসারে সহায়তা ও সোনার বাংলা বিনির্মানে প্রধান সহায়ক হিসেবে বিশেষ ভূমিকা রাখবে। ধন্যবাদ সবাইকে।