View Question 2316 views

Subject : ১০টি উন্নয়ণমূলক কাজ ও আগামী ২ বছরের উন্নয়ণ কর্মসূচী প্রসংগে!

Avatar

Written By : Rabiul H Bhuyian

মাননীয় এমপি মহোদয়,

আমারএমপি ডট কমের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা নিন। আমরা আপনার সংসদীয় এলাকার জনগনের পক্ষ থেকে আপনার মাধ্যমে ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে এরকম ১০টি উন্নয়ণমূলক কাজ এবং আপনার আগামী ২ বছরের উন্নয়ণ কর্মসূচী প্রসংগে জানতে চাই।

বিনীত,

আমার এমপি ডট কম কর্তৃপক্ষ।

Avatar

Written By : Rejwan Ahammad Taufiq -রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক

Public

জনগণ ও জনপ্রতিনিধিদের মধ্যে সেতুবন্ধনের ওয়েবসাইটের নাম আমার এমপি ডট কম । এ ওয়েবসাইটের মাধ্যমে দেশের নির্বাচিত সংসদ সদস্যদের নিজ নিজ আসনের জনগণের সাথে যোগাযোগ বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ জন্য আমি আমার এমপি ডট কম কর্তৃপক্ষকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

আপনারা জানেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ কন্যা ও জননেত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করে তাঁর উন্নয়নের সেবা পৌঁছে দিচ্ছেন প্রান্তিক জনগণের কাছে। শান্তি, নিরাপত্তা ও উন্নয়নের রূপকার হয়ে বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে রোলমডেল হিসেবে উপস্থাপনে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা বিশ্বে এক উদীয়মান বিশ্বনেতা। জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশের মানুষের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করার পাশাপাশি উন্নয়নশীল দেশের নেতা হয়ে বিশ্ব দরবারে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকারের আমলে কিশোরগঞ্জের হাওরের তিন উপজেলায় (ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্র­াম) ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে এবং হচ্ছে। এ ধারাবাাহিকতায় আমার নির্বাচনী এলাকার ৩ বছরের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ১২টি উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড এবং আগামী দুই বছরের উন্নয়ন পরিকল্পনা নিম্নে তুলে ধরা হলো :

 আমার নির্বাচনী এলাকার ৩ বছরের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডগুলো নিম্নরূপ :

১। হাওরে এক সময় চলাচলের একমাত্র বাহন ছিল নাও (নৌকা) আর পাও (পা)। তবে বর্তমানে তিন উপজেলায় সাবমার্সেবল রোড নির্মাণ হওয়ায় “নাও” আর “পাওয়ের” ওপর নির্ভরতা অনেকটা কমে গেছে। এখন তিন উপজেলায় জনগণ মটরসাইকেল, অটোরিকশায় চড়ে দুই ঘন্টায় জেলা শহরের সাথে যোগাযোগ করতে পারে।

২। হাওরের তিন উপজেলা ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্র­াম উপজেলার জনগণ বর্ষায় এক উপজেলা থেকে অন্য উপজেলায় নৌকা ছাড়া চলাচল করতে পারে না। তাই তিন উপজেলার জনগণের চলাচলের সুবির্ধাতে  অলওয়েদার (সারা বছর চলাচলের রাস্তা) রোডের কাজ নির্মাণাধীন ।

৩। আমার নির্বাচনী তিন উপজেলার বিছিন্ন গ্রামগুলোতেও সন্ধ্যায় কেরোসিনের কুপির বদলে চারদিক আলোকিত করে জ্বলে ফিলামেন্টের তারে তৈরি বৈদ্যুতিক বাতি। এরই ধারাবাহিকতায় তিন উপজেলার অধিকাংশ গ্রাম বিদ্যুতের আওতায় আনা হয়েছে এবং মিঠামইন উপজেলা বিদ্যুতের সাবস্টেশন নির্মাণ করা হয়েছে।

৪। ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্র­াম তিন উপজেলার জনসাধারণের স্বাস্থ্য সেবার সুবির্ধাতে তিনটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেই ৩১ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় উন্নিত করা হয়েছে।

৫। তিন উপজেলার ২৪টি ইউনিয়নের মধ্যে অধিকাংশ ইউনিয়নে কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন করা হয়েছে এবং বাকিগুলো প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

৬। ইটনা উপজেলার রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ কলেজ, মিঠামইন উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হক কলেজ ও অষ্টগ্রাম উপজেলার অষ্টগ্রাম রোটারী ডিগ্রি কলেজ সরকারীকরণ করা হয়েছে।

৭। আমার নির্বাচনী তিন উপজেলার মধ্যে মিঠামইন উপজেলায় তমিজা খাতুন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও অষ্টগ্রাম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় সরকারীকরণ করা হয়েছে। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছাড়াও অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নতুন নতুন ভবন নির্মাণ করা হয়েছে।

৮। তিন উপজেলার নৌপথে যাতায়ত ফিরিয়ে আনতে গুরুত্বপূর্ণ নদীগুলো খনন করা হয়েছে এবং পলি পড়ে ভরাট হওয়া নদীগুলো খনন করা হচ্ছে।

৯। অষ্টগ্রাম উপজেলায় ধলেশ্বরী নদীর উপর ৩৪১ মিটার দীর্ঘ রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ সেতু নির্মাণ হওয়ায় পাঁচ ইউনিয়নের জনগণের সারা বছরের যোগাযোগ সৃষ্টি হয়েছে।

১০। ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্র­াম উপজেলার কৃষকদের ফসল আগাম বন্যা থেকে রক্ষা করার জন্য হাওরে গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় সুইচ গেইট নির্মাণ করা হয়েছে এবং আরো সুইচ গেইট নির্মাণ করা হচ্ছে ।

১১। তিন উপজেলায় বন্যা আশ্রয়ন কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।

১২। বর্ষায় আফালের কবলে পড়ে হাওরের গ্রামগুলো ভেঙ্গে যায় এবং ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয় । তাই আফাল থেকে রক্ষায় হাওরের বিভিন্ন গ্রামে প্রতিরক্ষা বাঁধ নির্মাণ করা হয়েছে এবং যেসব গ্রাম বাকি রয়েছে সেসব গ্রামগুলোতে প্রতিরক্ষা বাঁধ নির্মাণ করার প্রক্রিয়া চলছে।   

 আগামী দুই বছরের উন্নয়ন পরিকল্পনা নিম্নে তুলে ধরা হলো :

১। তিন হাওর উপজেলায় জরুরি উদ্ধার তৎপরতার জন্য ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন নিমার্ণ করা হবে। এরই মধ্যে অর্থও বরাদ্দ হয়েছে। আশা করছি খুব শিগগির ফায়ার সার্ভিস স্টেশন নির্মাণ কাজ শুরু হবে। এই তিন উপজেলায় ফায়ার কর্মীরা যাতে দ্রুতগতিতে দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছুতে পারেন, সেজন্য নৌ ও সড়ক পথে দু’ধরনের যানবাহন থাকবে।

২। হাওর প্রকৃতির এক লীলাভূমি। বর্ষায় কক্সবাজারের মতো পানির মাঝে ভেসে থাকে দ্বীপের মতো গ্রাম এবং শুকনো মৌসুমে হাওর রূপ নেয় সবুজের সমারোহে। বর্ষায় হাওর থেকে সূর্যোদয় ও সূর্যাস্ত দেখলে যে কারো মনে হবে সূর্য পানি থেকে উঠে পানিতেই অস্ত যাচ্ছে।  আর তিন উপজেলার মধ্যে যোগাযোগের অলওয়েদার সড়কের কাজ শেষ হলে হাওর হবে পর্যটনের অন্যতম এক জায়গা। তিন উপজেলার প্রকৃতির লীলাভূমির কথা চিন্তা করে আমি চেষ্টা করব হাওরকে পর্যটন কেন্দ্র ঘোষণা দেওয়ার।

৩।শহরের সাথে তিন উপজেলার জনগণের যোগাযোগ আরো সহজতর করতে অলওয়েদার সড়ক ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার চাতলপাড় সড়কের সাথে সংযোগ স্থাপন করা হবে।

৪। হাওরের যেসব গ্রাম এখনো বিদ্যুতের আওতায় আসেনি সেসব গ্রামগুলোও বিদ্যুতের আওতায় আনা হবে।

৫। অকাল বন্যায় প্রায়শই তিন উপজেলার কৃষকদের একমাত্র ফসল (ধান) তলিয়ে নেয়। তাই অকাল বন্যা থেকে তিন উপজেলার কৃষকদের ফসল রক্ষা করতে আরো সুইচ গেইট। 

সকলকে আবারো ধন্যবাদ।