View Question 1704 views

Subject : ১৪নং বন্দুক মারা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় বিষয়ে!

Avatar

Written By : Tajul Islam

মাননীয় এমপি মহোদয়।

প্রথমেই আমার সালাম নিন। ১৪নং বন্দুক মারা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এর এক্সটি বিষয়ে আপনাকে অবহিত করতে চাই।শরীয়তপুর জেলার জাজিরা থানার কুন্ডের চর ইউনিয়নে অবস্থিত। চরাঞ্চলের এই বিদ্যালয়টিতে ৪৮২ জন শিক্ষার্থী অধ্যায়নরত। দু’কক্ষ বিশিষ্ট একটি ১ তলা ভবন ও ১টি ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্রে শ্রেণীকার্যক্রম পরিচালিত হয়। প্রতিষ্ঠাতা কাল:১৯৪২ খ্রি:।পদ্মার তীরবর্তী এই প্রতিষ্ঠানটি প্রতিষ্ঠাকাল থেকে এ পর্যন্ত ২২ বার নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে।

অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় এই স্কুলের শিক্ষকগন কোনদিন স্কুলে যান না; কিন্তু ঠিকই নিয়মিত বেতন নিচ্ছেন। এই বিষয়ে আপনি কি কোন ব্যবস্থা নিবেন বলে আমরা আশা করতে পারি?

বিনীত,

তাজুল ইসলাম

আপনার একজন ভোটার


Avatar

Written By : B.M. Muzammel Haque - বি,এম, মোজাম্মেল হক

Public

ধন্যবাদ তাজুল ইসলাম। 

প্রত্যন্ত অঞ্চলের একটি স্কুলের সমস্যাকে আমার এমপি ডট কমের মাধ্যমে তুলে ধরার জন্য। বিদ্যালয়টি ২২ বার নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ার পরেও টিকে আছে। প্রাকৃতি দুর্যোগের বিরুদ্ধে আমাদের কিছু করার থাকেনা। তবে বিদ্যালয়ে শিক্ষকরা নিয়মিত বিদ্যালয়ে না যেয়ে বেতন নেওয়ার অভিযোগ তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আমি উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য বলে দিব। শিক্ষাব্যবস্থা উন্নয়ন ব্যহত করার চেষ্টা করলে শক্ত হাতে তা দমন করা হবে। আশাকরি সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়টি আগের চেয়ে ভাল ভাবে শিক্ষাব্যবস্থা অব্যাহত থাকবে। 


বি,এম মোজাম্মেল হক  
সংসদ সদস্য  
বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ  
শরীয়তপুর-১’’’